Home / অন্যান্য / গ্রামে সব আছে কিন্তু মানুষ নেই ১০০ বছর ধরে ,মানুষ বাস করতে পারেনা কেনো (ভিডিও)।

গ্রামে সব আছে কিন্তু মানুষ নেই ১০০ বছর ধরে ,মানুষ বাস করতে পারেনা কেনো (ভিডিও)।

গ্রাম আছে কিন্তু মানুষ নেই বিষয়টি মাথায় আসতেই মনে পরে মানুষ কেনো এই গ্রাম থেকে বিদায় হয়ে গিয়েছেন বা কোন কারনে গ্রামের ভিতর সব থাকা সত্বেও মানুষ এই গ্রামে থাকতে পারেনা ।

মনে মনে ভাবা হয় বা সাধারণত যে কেউ এই গ্রামের কথা শুনলে বলবে মওন হয় ভূতের ভয়ে গ্রাম ছেরেছে মানুষ এতো বড় গ্রাম তাহলে কেনো মানুষ ছারবে একমাত্র এটাই হয়তো হতে পারে এক মাত্র কারন এই গ্রাম ছারার ।

হ্যা এমনি এক গ্রাম যে গ্রাম টি অবস্থিত,ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার মঙ্গলপুর গ্রাম প্রায় একশো বছর ধরে জনমানবহীন। গ্রামে বসতির চিহ্ন আছে, শুধু মানুষ নেই।

লোকমুখে জানা যায়, প্রায় শত বছর আগে মঙ্গলপুর গ্রামে মহামারি আকারে কলেরা রোগ ছড়িয়ে পড়ে। এতে অনেক মানুষ মারা যান। গ্রামটির আলো-বাতাস-পানি সবকিছু নষ্ট হয়ে গেছে বলে ধারণা করেন বাসিন্দারা। এখানে থাকলে কেউ বাঁচবে না, এমন ধারণারও জন্ম নেয় তাদের মনে। এরপর মঙ্গলপুর ছাড়েন মানুষেরা।

আমাদের সভ্যতার এতো উন্নতি হলেও এই গ্রামটি আমাদের বাংলাদেশের মধ্যে একটি জনশূন্য গ্রাম হয়ে আছে এখনো ,আমাদের ডিজটাল বাংলাদেশ এখনো কি এখানে আলোর ছোয়াকে কাজে লাগিয়ে দেশের একটি জনশক্তি বা রাষ্ট শক্তিতে পরিনত করতে পারেনা ।

গ্রামের লোক যারা এই ভ্রান্ত ধারনা নিয়ে বেচে আছে তাদের কি ফেরানো সম্ভব নয় এই গ্রামে মনে করা যায় সম্ভব কেনো গ্রামে কোনো কিছুর অভাব নেই বলরেই চলে জমি মাটিও উর্বর রাস্তাঘাটও আছে তবে তা পাকা নয় উন্নয়ন কার্য সম্পন্ন করে আমরা এই গ্রামটিতে আবার ফিরা কি সম্ভব নয়।

এই গ্রাম সম্পর্কে জানতে হলে এই লিংকে ক্লিক করে ভিডিওটি দে’খুন।

Check Also

শেকল ছেরে হাতির তান্ডব ফসলি জমির ক্ষয়ক্ষতি।

লালমনিরহাটের সদর উপজেলায় শেকল ছিঁড়ে তাণ্ডব চালিয়েছে মাহুতের একটি হাতি। রোববার দুপুরে রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের তিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.