Breaking News
Home / খেলার খবর / কিউইদের প্রথম দিন শেষ হলো রানের পাহাড় তুলেই।

কিউইদের প্রথম দিন শেষ হলো রানের পাহাড় তুলেই।

পরিকল্পনা মতোই ক্রাইস্টচার্চে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে টস হেরে ব্যাট করতে নামে কিউইরা। টেস্টের প্রথম দিনের সকালের সেশনে সবুজ উইকেটের ফায়দা কাজে লাগাতে পারেননি বাংলাদেশি পেসাররা। উল্টো সফরকারী বোলারদের শাসন করে ওয়ানডে স্টাইলে স্কোর বোর্ডে রান তুলেছে ব্ল্যাকক্যাপসরা। স্বাগতিকদের দাপুটে ব্যাটিংয়ের আড়ালে আক্ষেপ সঙ্গী হয়েছে বাংলাদেশ দলের।

দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচ হেরে ‘ব্যাকফুটে’ নিউজিল্যান্ড। তবে ক্রাইস্টচার্চের ঘাসের উইকেটে যেকোনো দলই চাইবে আগে বোলিং করতে, সকাল সকাল উইকেট নিয়ে নিতে কিন্তু, হয়েও হলো না বাংলাদেশের।

এবাদত হোসেনের করা প্রথম ওভারেই দুইবার আউট হন টম ল্যাথাম। এলবিডব্লু হলেও দুইবারই বেঁচে যান রিভিউ নিয়ে। এই যে শুরু, ল্যাথাম শেষ পর্যন্ত সেঞ্চুরিই তুলে নেন। ক্যারিয়ারে এটি তার ১২তম টেস্ট সেঞ্চুরি।

দুইবার জীবন পেয়ে আরেক ওপেনার ডেভিড ইয়াংকে নিয়ে জুটি গড়েন ১৪৮ রানের। বলা যায় টাইগার বোলারদের হতাশ করে স্বাগতিকদের শুরুটা করেছেন ল্যাথাম-ইয়াং দারুণ ভাবে।

উইল ইয়াং ৫৪ (১১৪) রান করে ফেরেন শরিফুল ইসলামের বলে পয়েন্টে থাকা নীম শেখের হাতে। এরপর ডেভন কনওয়ের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন ল্যাথাম। বাংলাদেশকে রান পাহাড়ে পিষ্ট করার প্রত্যয়ে এগিয়ে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড। লাথামের দৃঢ় ব্যাটিংয়ে বড় সংগ্রহের পথে স্বাগতিকরা। লাথাম-কনওয়ে জুটিতে ভর করে দলীয় সংগ্রহ এরই মধ্যে ৩০০ পেরি ৩৫০ রান পার করার অপেক্ষা স্বাগতিকরা।

তবে দিনের নির্ধারিত ৯০ ওভারে খেলা শেষ হওয়া আজকের দিন শেষ করেছে নিউজিল্যান্ড। প্রথম দিন শেষে ১ উইকেটে ৩৪৯ রান করেছে নিউজিল্যান্ড। কনওয়ে ৯৯ ও ল্যাথাম ১৮৬ রানে রয়েছেন অপরাজিত।

দুই ম্যাচের সিরিজে মাউন্ট মঙ্গানুইতে প্রথম ম্যাচ জিতে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। গত ১১ বছরে ঘরের মাঠে সিরিজ না হারা নিউজিল্যান্ডের সামনে কঠিন পরীক্ষা হয়ে দাঁড়ালো বাংলাদেশ। এই ম্যাচটা ড্র হলেও যে তাদের অপরাজিত থাকার রেকর্ডটা ভেঙ্গে যাবে!

Check Also

রান আউট মিস,ক্যাচ মিস, হলো সাত রান।

মাউন্ট মঙ্গানুইয়ের বে ওভাল আর ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালের মধ্যে রাত-দিন পার্থক্য তৈরি করে ফেলেছে স্বাগতিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *